আকাশের ব্যাটের পর রাম শঙ্করের বন্দুকের গুলি চালিয়ে শাসানি সরকারি কর্মচারীকে,  ঔদ্ধত্য ক্রমেই সীমা ছাড়াচ্ছে

0
After shooting the sky, Ram sankar shot the gunman and shot down the government employee, increasing the limits of arrogance

টাইমস বাংলা, নিউজ ডেস্ক : বিজেপি দলের জনপ্রতিনিধিরা যেন প্রতিবার আরো বেশি করে ঔদ্ধত্যের সীমা লঙ্ঘন করে চলেছেন। ইন্দোরে কৈলাস বিজয়বর্গীয়র পুত্র আকাশ বিজয়বর্গীয়র ব্যাট নিয়ে সরকারি আধিকারিককে বেধড়ক মারের পর , এবার মধ্যপ্রদেশের এটাওয়াহ এর সাংসদ রাম শঙ্কর কাঠেরিয়া একজন সরকারি কর্মীকে চড় মারলেন, বন্দুক উঁচিয়ে খুন করার হুমকি দিলেন, শূন্যে গুলিও চালালেন টোলপ্লাজায় তার কাছ থেকে টোলের অর্থ চাওয়ার জন্য। শ্রী কাঠেরিয়া তপশিলি জাতি জাতীয় কমিশনের চেয়ারম্যানও বটে। একটি ভিডিও ইতিমধ্যেই ভাইরাল হয়ে গেছে তাতে দেখা যাচ্ছে রাম শঙ্কর কাঠেরিয়া তার নিরাপত্তারক্ষীর সঙ্গে  টোলপ্লাজার কর্মচারীকে চর মারছেন, শূন্যে গুলি চালাচ্ছেন। টোলপ্লাজার কর্মচারীদের অভিযোগ, রাম শঙ্কর কাঠেরিয়া ভিআইপি লেন দিয়ে ঢোকেননি। তাদের কাছে সাংসদের আসার কোন খবর ছিল না। টোলপ্লাজায় পৌঁছলে কর্মচারীরা তার পরিচয়পত্র ও টোলের অর্থ দাবি করলে গন্ডগোল বাধে। সাংসদের নিরাপত্তারক্ষী জামার কলার ধরে টোলের কর্মচারীদের হেনস্থা করে। দুপক্ষের মধ্যে বাক্য বিনিময় ক্রমেই উত্তপ্ত হয়ে উঠলে সাংসদের দেহরক্ষী কর্মচারীদের চর, থাপ্পড় মারে। যদিও সাংসদের দাবি তার নিরাপত্তারক্ষীরা টোল প্লাজার কর্মচারীদের আক্রমণ করেনি, বরং তারাই প্রথমে তাদের উপর আক্রমণ করে। আত্মরক্ষার জন্যই তার নিরাপত্তারক্ষী শূন্যে গুলি চালিয়েছেন বলে তিনি দাবি করেন। এর আগেও আগ্রার সাংসদ থাকাকালীন তিনি এই ধরণের কান্ড ঘটিয়েছিলেন।