অজানিতের দেশে অপু

0

শ্যামল মিশ্র

অপুকে দেখেছিলেম খলসেমারির বিল পেরিয়ে রেলের রাস্তার ধারে দুর্গার সাথে…
তারপর একদিন মানিকবাবু ধরে আনলেন
কথাবলা অপু জন্ম নিল সেলুলয়েডে
সেই পথ চলা শুরু
বিভূতিবাবুর অপু মানিকবাবুতে পূর্ণতা পেল…

স্টীমারের ভোঁ শুনে নদী পারে যাওয়ার স্বপ্ন দেখত অপু
একদিন ঘুম থেকে উঠে দেখল
ফুলের পাঁপড়ির মতো দুটো চোখ
বিস্ময়ে লজ্জাবনতা… চৌকাঠ ধরে দাঁড়িয়ে অপর্ণা
অপু আর অপর্ণা র সেই পথচলা শুরু
মাঝে অনেকগুলো বছর কেটে গেছে
ছোট্ট অপু কখন যেন বড় হয়ে গেল
জীবন ‘শাখাপ্রশাখা’ মেলল, ‘অভিযান’ শুরু
অপু আর পুলু কখন যেন মিলে মিশে একাকার

কখনো ‘কিং-লিয়ার’ আবার কখনো কবিতাকে ভালোবেসে ‘জলপ্রপাতের ধারে দাঁড়াব বলে’–এক অনাবিল স্বচ্ছন্দ বিহার
বল্গাহীন অনন্ত সে চলা
তিন পাত্তি দিয়ে অনায়াসে ই তুমি জীবন কিনে নিলে…

অনেকগুলো বসন্ত পেরোলে…
প্রেমহীন নীতিহীন পৃথিবীর দার্ঢ্যে অপু যেন আজ ক্লান্ত অবসন্ন
পেশীশক্তির দৌর্দন্ড্যপ্রতাপ কিংবা মূল্যবোধহীনতার যন্ত্রণায় অপু ক্ষতবিক্ষত
সমাজ যখন নীতিহীন ভ্রষ্টাচারের পথে
স্কুল কলেজে যখন নৈরাজ্য বাসা বাঁধছে
তখন যে তোমার মতো উদয়ন মাস্টারদের বড় প্রয়োজন…

দিন গড়িয়ে রাত্রি নামল
ধীরে ধীরে আলো নিভে গেল
অপু র পথ চলা শেষ হলো… অপু চলল অজানিতের দেশে
পেছনে পড়ে রইলো হাজারো অপু
প্রেমহীন পৃথিবীতে প্রেমের বার্তা নিয়ে…