লকডাউন ও আমফানে সর্বস্ব হারানো মাদ্রাসা পড়ুয়াদের পরিবারের পাশে বেঙ্গল মাদ্রাসা এডুকেশন ফোরাম

0

টাইমস বাংলা বিশেষ প্রতিবেদন : রাজ্যে কোভিড মোকাবিলায় মুখ্যমন্ত্রীর ত্রাণ তহবিলে ২৫ লক্ষ ১ হাজার ১০১ টাকা দান করলো বেঙ্গল মাদ্রাসা এডুকেশন ফোরাম। বুধবার ফোরামের প্রেসিডেন্ট ইসরারুল হক মন্ডল সহ অন্যান্য সদস্যরা সল্টলেকের বিকাশভবনে গিয়ে শিক্ষামন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায়ের সঙ্গে দেখা করে তার হাতে এই অর্থের চেক তুলে দেন। ফোরামের প্রেসিডেন্ট ইসরারুল হক মন্ডল এদিন টাইমস বাংলাকে জানালেন, এখনো পর্যন্ত ১০ টি শিবির করে ২৫০০ দুস্থ মাদ্রাসা ছাত্র ছাত্রীর পরিবারের হাতে খাদ্য সামগ্রী তুলে দেওয়া হয়েছে। গড়ে ২৫০ টাকা করে পরিবার পিছু আর্থিক সাহায্যও করা হয়েছে। এর জন্য ফোরামের তরফ থেকে ১০ থেকে ১২ লক্ষ টাকা খরচ করা হয়েছে।

এদিকে, বৃহস্পতিবার থেকে ঘূর্ণিঝড় আমফানে ক্ষতিগ্রস্থ পরিবারের কাছে ত্রাণ সামগ্রী ও সুরক্ষা সামগ্রী পৌঁছে দিতে চলেছে বেঙ্গল এডুকেশন ফোরাম। বৃহস্পতিবার উত্তর চব্বিশ পরগনার স্বরূপনগরে দুই মাদ্রাসায় কয়েকশো ক্ষতিগ্রস্থ পরিবারের হাতে চিড়ে, গুড়, চিনি, ডাল, সয়াবিন, সর্ষের তেলের পাশাপাশি ত্রিপল, হ্যান্ড স্যানিটাইজার ও সাবান,ব্লিচিং পাউডার, ওআরএস তুলে দেওয়া হবে ফোরামের পক্ষ থেকে। হাসনাবাদের টিয়াপাড়ায় নদীর জলে বানভাসি ২৫০ পরিবারের হাতে খাবার ও সুরক্ষা সামগ্রী তুলে দেবেন তারা। এরপর দক্ষিণ ২৪ পরগনার কাকদ্বীপ, নামখানায় ত্রাণ সামগ্রী পৌঁছে দেবেন তারা। পাথরপ্রতিমার দুর্গাচুটিতে ১৩০ জন পরিযায়ী শ্রমিকের জন্য ও গোপালনগরে ক্ষতিগ্রস্থ গ্রামবাসীদের জন্য কমিউনিটি কিচেন চালু করা হচ্ছে বলেও ফোরামের প্রেসিডেন্ট জানান। এছাড়া নদিয়ার নাকাশিপাড়া ও বীরভূমের সাইথিয়ায় মোট ৪৫০ পরিবারের কাছে খাবার ও সুরক্ষা সামগ্রী পৌঁছে দেবে তারা। ইসরারুল জানান, আমফানে ক্ষতিগ্রস্থ প্রতিটি পরিবারের কাছে সরাসরি তারা তাদের সাহায্য পৌঁছে দেবেন।