করোনায় ক্ষতির জন্য ক্ষতিপূরণ দিতে হবে চীনকে, হুমকি মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের

0

টাইমস্ বাংলা ডেস্ক: করোনার আবহে তার দেশ এতটাই ক্ষতিগ্রস্ত যে করোনার উৎপত্তিস্থল চীনের উপর রীতিমতো ক্ষেপে রয়েছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট। করোনা-সংক্রমণের নিরিখে এই মুহূর্তে বিশ্বে শীর্ষে রয়েছে আমেরিকা। মৃত্যু হয়েছে ৫৫ হাজারের অধিক মানুষের। যার জন্য পরোক্ষে ট্রাম্পের দিকেই আঙুল তুলছেন বিরোধীদলেরা। যদিও তাতে কর্ণপাত না-করে ট্রাম্প দুষে চলেছেন সেই চিনকে। করোনাভাইরাস ছড়িয়ে পড়া থেকে রুখতে চিন কী ব্যবস্থা নিয়েছিল তা জানতে মার্কিন প্রশাসন ‘কড়া তদন্ত’ শুরু করবে বলে হুঁশিয়ারি দিলেন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। এমনকি বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা ‘হু’ এর বিরুদ্ধে চীনের পক্ষপাতিত্ব করার অভিযোগও তুলে ‘হু’র আর্থিক সাহায্য বন্ধ করে ষদেন। এ-ও জানিয়ে রাখলেন, করোনার জেরে তাঁর দেশ যে কঠিন বিপদের মুখে পড়েছে, তার জন্য চিনের থেকে ক্ষতিপূরণ দাবি করবে।

গত কয়েক সপ্তাহ যাবৎ যথেষ্ট সমালোচনার মুখে পড়তে হয়েছিল মার্কিন প্রেসিডেন্টকে। সব দেখেশুনে তাঁর উপদেষ্টারা পরামর্শ দিয়েছিলেন, কোভিড-১৯ নিয়ে ট্রাম্পের বেফাঁস মন্তব্যে ধাক্কা খেতে পারে তাঁর নির্বাচনী প্রচার। যে কারণে কয়েক দিন সাংবাদিক বৈঠক করেননি ট্রাম্প। তবে এক সপ্তাহও কাটেনি। আজ যথারীতি চিনকে নিশানা করে বলেছেন, ‘‘ওদের দোষী বলার পিছনে অনেক কারণই রয়েছে। আমরা কড়া তদন্ত করব। আমরা মনে করি এই অতিমারি উৎসস্থলেই থামিয়ে দেওয়া যেত। সারা পৃথিবীতে ছড়িয়ে পড়া থেকে রোখা যেত।’’ উল্লেখ্য, জার্মানি চিনের থেকে ১৬ হাজার ৫০০ কোটি ডলার ক্ষতিপূরণ চাওয়া হয়েছে সে দেশের এক সংবাদপত্রে প্রকাশিত হয়েছে। এই প্রসঙ্গে ট্রাম্প বলেছেন, ‘‘জার্মানি যে টাকা চেয়েছে তার থেকে অনেক বেশি টাকার কথা ভাবছি।’’ কত বেশি? ‘‘টাকার পরিমাণ এখনও নির্ধারিত হয়নি। তবে অবশ্যই মোটা অঙ্ক,’’ জবাব তাঁর।