করোনা ও লকডাউন নিয়ে মানুষের সমস্যা শুনতে হেল্পলাইন নম্বর চালু, টাস্ক ফোর্স গঠন রাজ্য সরকারের

0

টাইমস বাংলা নিউজডেস্ক : করোনা সংক্রমণ ও লকডাউন পরিস্থিতির নিরিখে যাবতীয় সমস্যা ও অভিযোগের নিরসনে রাজ্য সরকার একটি অভিন্ন কেন্দ্রীয় হেল্পলাইন চালু করেছে।নবান্নে বুধবার এক সাংবাদিক বৈঠকে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় একথা ঘোষণা করেন। তিনি বলেন বর্তমান পরিস্থিতিতে নাগরিকরা যেকোন সমস্যায় এই হেল্পলাইনে ফোন করতে পারবেন।হেল্পলাইনে টোল ফ্রি নম্বর ১০৭০। এছাড়া ০৩৩ ২২১৪৩৫২৬ নম্বরে ফোন করে সমস্যা বা অভিযোগ জানানো যাবে।

পরিস্থিতির ওপর নজরদারির জন্য রাজ্য সরকার দুটি পৃথক টাস্কফোর্স গঠন করেছে বলে মুখ্যমন্ত্রী জানিয়েছেন। রাজ্যের মুখ্যসচিব ও রাজ্য পুলিশের মহানির্দেশকের নেতৃত্বে এই কমিটি দুটি গঠন করা হবে । মুখ্য সচিবের নেতৃত্বে গঠিত টাস্ক ফোর্সে জরুরি পরিষেবার সঙ্গে যুক্ত সব দপ্তরের সচিবরা থাকবেন। রাজ্য পুলিশের মহানির্দেশকের নেতৃত্বে অন্য কমিটিতে থাকবেন রাজ্যের এডিজি আইনশৃঙ্খলা,কলকাতা পুলিশ কমিশনার। তারা নিরন্তর সমন্বয় ও নজরদারির কাজ চালাবেন। অন্যদিকে জরুরি পরিষেবাকে লক ডাউনের আওতা থেকে বাইরে রাখা হলেও স্থানীয় ভাবে পুলিশ কর্মীরা ই কমার্সের ডেলিভারি বয়, সবজি বা অন্যান্য নিত্যপ্রয়োজনীয় সামগ্রীর জোগানদারদের হেনস্থা করছে বলে অভিযোগ উঠেছে। জরুরি পরিষেবা যাতে কোন ভাবে ব্যাহত না হয় তা নিশ্চিত করতে মুখ্যমন্ত্রী প্রশাসনকে নির্দেশ দিয়েছেন। লক ডাউন চলাকালীন নিয়ম না মানলে সাধারণ মানুষের বিরুদ্ধে যেমন ব্যবস্থা নেওয়া হবে সরকারের নির্দেশ যথাযথ পালন না করলে পুলিশ প্রশাসনের কর্মীদের বিরুদ্ধে একই আইনে ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলে মুখ্যমন্ত্রী জানিয়েছেন।

অন্যদিকে পরিস্থিতি মোকাবিলায় রাজ্য সরকারের তহবিলে অর্থ দান করার জন্য মুখ্যমন্ত্রী আবেদন জানিয়েছেন।wb.gov.in ওয়েবসাইটে অনলাইনে অর্থদান করা যাবে।

মুখ্যমন্ত্রী জানান সরকার পরিস্থিতির ওপর নজর রাখছে। সকলকে কেন্দ্রের নির্দেশ মেনে তিন সপ্তাহের লক ডাউন মেনে চলার তিনি আবেদন জানিয়েছেন।৩১ সে মার্চ পরিস্থিতি পর্যালোচনা করে রাজ্য সরকার পরবর্তী পদক্ষেপ নেবে বলে মুখ্যমন্ত্রী জানিয়েছেন। সকলকে একযোগে পরিস্থিতির মোকাবিলা করার তিনি আহ্বান জানান।