মনের জোর বাড়িয়ে, সঠিক কৌশলে WBCS সফল হওয়ার পথ দেখাচ্ছেন রুদ্র মুখার্জী

0

বিশেষ প্রতিবেদন,টাইমস্ বাংলা : কেরিয়ার শুরু করেছিলেন আইএএস চাকরিপ্রার্থীদের প্রশিক্ষক হিসেবে। এরপর বিষয়ভিত্তিক পাঠদান ছেড়ে সেই চাকরিপ্রার্থীদের জন্যই হয়ে উঠলেন মোটিভেশনাল স্পিকার ও এক্সাম স্ট্রাটেজিস্ট। তিনি রুদ্র মুখার্জি। বাংলায় প্রথম অনলাইনে সরকারি চাকরির প্রস্তুতির শিক্ষাদানের স্রষ্টা। বাংলার বুকে তিনিই প্রথম ডাবলুবিসিএস প্রস্তুতির জন্য অনলাইন পাঠদানের ব্যবস্থা চালু করেছিলেন যার নাম ‘জিরোসাম।’ ২০১৭ সালে এই অনলাইন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান আত্মপ্রকাশ করে। ছাত্রছাত্রীদের কাছে ক্রমেই জনপ্রিয় হয়ে ওঠে জিরোসাম। জনপ্রিয় শিক্ষা প্রতিষ্ঠান রাইস, মাইসের শিক্ষকরা এখানে পড়াতে শুরু করলেন। ছাত্রছাত্রীদের সংখ্যা বাড়তে লাগলো । বর্তমানে প্রায় ৫০০ জন ছাত্র ছাত্রী এই অনলাইন প্রতিষ্ঠানে পঠন পাঠনের মাধ্যমে তাদের কাঙ্খিত ডাবলুবিসিএস এর চাকরির প্রস্তুতি নিচ্ছে। চলতি বছরের ফেব্রুয়ারি মাসে পরীক্ষা নামক আরেক সর্বভারতীয় অনলাইন শিক্ষাদানের সংস্থা এই সংস্থা অধিগ্রহণ করে। চুক্তি অনুযায়ী নতুন মালিকানায় তিনি সংস্থার সিইও নিযুক্ত হন। মে মাসে সংস্থার আধিকারিকদের সঙ্গে বিভিন্ন বিষয় মতানৈক্য হওয়ায় তিনি ঐ সংস্থা থেকে পদত্যাগ করেন।

টাইমস বাংলাকে রুদ্র মুখার্জী জানালেন, ” আমি দিল্লি, কলকাতার বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানে আইএএস, ডাবলুবিসিএস এর জন্য পড়িয়েছি। পরবর্তীকালে নিজের উদ্যোগে বেশ কয়েকটি সংস্থা চালু করি। তবে জিরোসাম আমার অনেক কাছের। অনলাইনের মাধ্যমে অনেকের কাছে অতি সহজে পৌঁছে যাওয়া যায়, তাই অনলাইনে চাকরির প্রস্তুতির শিক্ষাদানের ব্যাপারটি আমার মাথায় আসে। প্রথমে ইউটিউব, পরে ফেসবুকের মাধ্যমে প্রচার। পরে স্কাইপের মাধ্যমে ডাবলুবিসিএসের পড়াশোনা শুরু হলো। তবে ডাবলুবিসিএসের সঙ্গে অন্যান্য পরীক্ষার সিলেবাসও পড়ানো হতো। আমি আগে রাষ্ট্রবিজ্ঞান, ইতিহাস, মনোবিজ্ঞান পড়িয়েছি। তবে পরবর্তীকালে ডাবলুবিসিএস এর মত কঠিন পরীক্ষায় সাফল্যের জন্য ছাত্র ছাত্রীদের মানসিক দৃঢ়তার দিকটি বিশেষ নজর দিয়েছি।।মনের জোর বৃদ্ধি করার ক্লাস নিতাম। আর কি কৌশলে পরীক্ষায় সাফল্য লাভ করা যাবে, তা তৈরি করে দিতাম।”

।। আপনিও কি আপনার সাফল্যের গল্প শোনাতে চান? তাহলে এখুনি যোগাযোগ করুন এই নম্বরে 9836428395 ।।

আগামী দিনে তিনি ছাত্র ছাত্রীদের মনের জোর বৃদ্ধি করতে ও পরীক্ষায় সফল হওয়ার কৌশল জানাতে ইউটিউব চ্যানেল ও একটি মোবাইল এপ্লিকেশন খুলতে চান। ” রুদ্রবাবুর কথায় অনেক গরীব ঘরের ছেলেমেয়েরা প্রাথমিকভাবে ব্যর্থ হলেই ভেঙে পরে। কিন্তু ব্যর্থতাকে কিভাবে আলিঙ্গন করেই সাফল্যের মুখ দেখা যাবে সেই বার্তাই আমি ডাবলুবিসিএস এর মত কঠিন পরীক্ষায় যারা বসতে চান তাদের দিতে চাই। ব্যর্থতাকে ভয় পেলে একদম চলবে না। মনের জোর রাখতে হবে। মানসিকভাবে নিজেকে প্রস্তুত করতে হবে। আবেগকে ও নিজের মনকে জয় করতে হবে। বর্তমানে মধ্যবিত্ত ও নিম্নমধ্যবিত্ত ঘরের ছাত্র ছাত্রীদের এটা বিশেষভাবে প্রয়োজন। তাই ইতিহাস, অংক, ইংরেজি, রাষ্ট্রবিজ্ঞানের মত বিষয় তো পড়তেই হবে, কিন্ত তার সাথে মাথা ঠান্ডা করে, মানসিক দৃঢ়তা নিয়ে কিভাবে একজন ছাত্র বা ছাত্রী সাফল্যের পথে এগিয়ে যাবে, পরীক্ষায় সাফল্য লাভ করবার জন্য কিভাবে তারা নিয়মিত পড়াশোনা করবে, কিভাবে নিজেকে প্রস্তুত করবে, সেই শিক্ষাটাও আজকের দিনে আবশ্যক। সেই কাজটাই আমি আগামী দিনেও এগিয়ে নিয়ে যেতে চাই।”

রুদ্র মুখার্জীর ফেসবুক পেজ ফলো করতে এখানে ক্লিক করুন