পুরভোটের আগে দ্রুত বাড়ির প্ল্যান অনুমোদন ,পরিষেবা দেওয়ার উদ্যোগ কলকাতা মেয়রের

0
Prior to the vote, the Kolkata Mayor has approved the plan of the house immediately

পল্লব ঘোষ টাইমস বাংলা কলকাতা : পুরভোট আসন্ন। তাই পুরপ্রশাসনকে আরো সক্রিয় হওয়ার নির্দেশ দিলেন কলকাতা পুরসভার মেয়র ফিরহাদ হাকিম। শহরবাসীর কাছে দ্রুত পুরপরিষেবা পৌঁছে দিতে আধিকারিকদের উদ্দেশ্যে কড়া বার্তা পাঠালেন তিনি। পুরভবনে বিভিন্ন কাজের জন্য এসে দীর্ঘদিন ধরে এক বিভাগ থেকে আরেক বিভাগে ঘুরতে হয় শহরবাসীকে। এক বিভাগ থেকে আরেক বিভাগে ফাইল যেতে লেগে যায় কয়েক মাস। এই নিয়ে বছরের পর বছর অভিযোগ হয়ে আসছে। এবার এই প্রথা ভাঙতে জনসংযোগ কার্ড করার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন মেয়র। প্রতিটি অভিযোগকারীকে মেয়রের অফিস থেকে একটি করে জনসংযোগ কার্ড দেওয়া হবে। যে বিভাগের কাছে পরিষেবার জন্য অভিযোগকারী এসেছেন সেই কার্ড নিয়ে তারা ঐ বিভাগে যাবেন। কাজটি কোন পর্যায়ে রয়েছে ও কত দিনের মধ্যে সেই কাজটি শেষ হবে, কোন নথির প্রয়োজন হলে কি কি নথি লাগবে তা ঐ কার্ডে লিখে দিতে হবে সংশ্লিষ্ট আধিকারিককে। কাজ শেষ হয়ে গেলেও তা উল্লেখ করে দিতে হবে কার্ডে। এরপর তা সঙ্গে সঙ্গে পুরসভার ওয়েবসাইটে আপলোড করে দিতে হবে, যাতে মেয়রের অফিস থেকেই তা নজর রাখা যায়। মেয়র সোমবার বলেন, ” ঐ কার্ডটি অভিযোগকারীর কাছেই থাকবে। ঐ কার্ডেই তার পরিষেবার যাবতীয় তথ্য থাকবে। ঐ কার্ড দেখেই বোঝা যাবে, কত দিন ঐ ব্যক্তি পরিষেবার জন্য ঘুরছেন।”

এদিকে, এবার থেকে কোন বিল্ডিং এর নকশা অনুমোদনের জন্য পুরসভায় জমা পড়লেই সাত দিনের মধ্যে তার একশান টেকেন রিপোর্ট মেয়রের কাছে জমা দিতে হবে। সোমবার মেয়র পারিষদের বৈঠকে এই সিদ্ধান্ত হয়েছে বলে মেয়র জানান। তিনি বলেন, ” আমি বলেছি কোন বিল্ডিং প্ল্যান ফেলে রাখা যাবে না। দ্রুত প্রক্রিয়া শুরু করতে হবে। যে প্ল্যানগুলি অনুমোদন দেওয়া যাচ্ছে না, কেন দেওয়া যাচ্ছে না তার কারণ লিখতে হবে। যে প্ল্যানগুলি আইনগত কারণে বাতিল করতে হচ্ছে, সেগুলি রিজেক্ট লিখে পুরসভার ওয়েবসাইটে আপলোড করার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।”