ইরাকে মার্কিন সেনা উপস্থিতির বিরুদ্ধে বিক্ষোভ, আরো সেনা পাঠাচ্ছে আমেরিকা

0
Protests against US military presence in Iraq, US sending more troops

নিউজডেস্ক, টাইমস্ বাংলাঃ ইরাকের রাজধানী বাগদাদে মার্কিন দূতাবাসের সামনে বিক্ষোভ এবং হামলার পর মধ্যপ্রাচ্যে আরো চার হাজার সেনা পাঠানোর নির্দেশ দিয়েছে মার্কিন সরকার। এর আলোকে আমেরিকার ৮২তম এয়ারবোর্ন ডিভিশনের প্রায় চার হাজার সেনাকে সম্ভাব্য মোতায়েনের জন্য সতর্ক অবস্থায় রাখা হয়েছে। এর অর্থ হচ্ছে তাদেরকে যেকোনো মুহূর্তে মোতায়েন করা হবে।

মার্ক এসপার বলেন, ইমিডিয়েট রেসপন্স ফোর্স বা আইআরএফ’র আরো বাড়তি সেনা মোতায়েনের জন্য প্রস্তুত করা হয়েছে। তিনি বলেন, বাগদাদে আমরা যা দেখেছি তাতে মার্কিন সেনা এবং দূতাবাস রক্ষার জন্য এই ব্যবস্থা নেয়া হচ্ছে।

মঙ্গলবার বাগদাদে মার্কিন দূতাবাসের সামনে হাজার হাজার ইরাকি বিক্ষুব্ধ জনতা সমবেত হন এবং দেশটির জনপ্রিয় স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন হাশ্‌দ আশ-শাবির একটি কেন্দ্রে মার্কিন বিমান হামলার নিন্দা ও প্রতিবাদ জানান। এসব বিক্ষোভকারী ইরাকে মার্কিন দূতাবাস বন্ধ এবং ইরাক থেকে মার্কিন সেনা বহিষ্কারের জন্য সংসদের কাছে দাবি জানান। এসময় দূতাবাস ভবনের ভেতরে থাকা মার্কিন সেনারা বিক্ষুব্ধ জনতাকে ছত্রভঙ্গ করতে টিয়ার গ্যাস এবং স্টান গ্রেনেড ছোঁড়ে। কিন্তু বিক্ষোভকারীরা আরো বিক্ষুব্ধ হয়ে ওঠে এবং দূতাবাসের কঠোর নিরাপত্তা ভেঙে এর ওপর চড়াও হয়।
বিশেষজ্ঞগন বলছেন, আমেরিকার এই সিদ্ধান্তে সমগ্র ইরাক আরো উত্তাল হতে পারে। কারন বিক্ষোভকারী নেতৃৃত্ব বলেছেন, ইরাকে মার্কিন দুতাবাস ইরাকের মানুষের বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্রে লিপ্ত। তারা ইরাকে মার্কিন সেনার উপস্থিতি আর সহ্য করবে না।