স্বস্তির বৃষ্টির পূর্বাভাস

0
Relief Rain Forecast

টাইমস বাংলা,ওয়েব ডেস্কঃ রাজ্যের পার্শ্ববর্তী রাজ্য ঝাড়খণ্ড ও বাংলাদেশের উপর তৈরি হয়েছে ঘূর্ণাবর্ত। এই ঘূর্ণাবর্ত দক্ষিণবঙ্গের উপরেও অবস্থান করছে। ভূ-পৃষ্ঠ থেকে ৪.৫ কিলোমিটার উপরে রয়েছে ঘূর্ণাবর্তটি। এর জেরে দক্ষিণবঙ্গে আজ মঙ্গলবার বৃষ্টি হতে পারে বলে জানাচ্ছে আলিপুর আবহাওয়া দফতর। বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে কলকাতাতেও।

বর্ষা আগমনের দিনক্ষণ এখনও স্পষ্ট না হলেও এই ঘূর্ণাবর্ত প্রাক বর্ষার বৃষ্টিকে বাড়াবে বলে জানাচ্ছেন আবহবিদরা। চলতি সপ্তাহে বুধবার কিংবা বৃহস্পতিবার কেরলে বর্ষার আগমন ঘটবে। সেই প্রভাবও পড়ছে রাজ্যের উপর। পাশাপাশি আর্দ্রতাজনিত অস্বস্তি ঘাম হবে। কারণ বর্ষা যত এগোয় বাতাসে জ্বলিয় বাস্পের পরিমাণ বাতাসে বৃদ্ধি পায়। সেটাই হচ্ছে এই মুহূর্তে রাজ্যজুড়ে। দহন জ্বালা না থাকলেও বৃষ্টি না হলে ঘাম ঝরাবে আর্দ্রতা।

মঙ্গলবার যেমন কলকাতায় সর্বোচ্চ আর্দ্রতার পরিমাণ ৯৭ শতাংশ, সর্বনিম্ন ৫৩ শতাংশ। আলিপুর আবহাওয়া দফতর জানিয়েছে, এদিন সকালে কলকাতার সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ৩৫.২ ডিগ্রি সেলসিয়াস। স্বাভাবিকের থেকে এক ডিগ্রি কম। সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ২৭.৫ ডিগ্রি সেলসিয়াস, যা স্বাভাবিক। আগামী কয়েক দিন সর্বোচ্চ তাপমাত্রা খুব একটা বৃদ্ধির সম্ভাবনা নেই। বৃষ্টি হলে উলটে আরও নামতে পারে পারদ।

দক্ষিণবঙ্গের বিভিন্ন জেলাগুলিতেও বিক্ষিপ্ত বৃষ্টি হয়েছে সোমবার। তার ফলে অনেকটাই গরম কমেছে। আর্দ্রতাজনিত অবশ্য রয়েই গিয়েছে বলে জানাচ্ছে আলিপুর আবহাওয়া দফতর।

বুধবার এবং বৃহস্পতিবার দক্ষিণবঙ্গে বৃষ্টি বাড়বে। কোনও কোনও জেলায় ভারী বৃষ্টিও হতে পারে। মুর্শিদাবাদ, বীরভূম, নদিয়া, পূর্ব মেদিনীপুর, হাওড়া, দুই ২৪ পরগনা, হুগলিতে ভারী থেকে অতি ভারী বৃষ্টি হতে পারে। কোথাও কোথাও ৪০ থেকে ৬০ কিলোমিটার গতিবেগে ঝড়ো হাওয়া বয়ে যেতে পারে। দক্ষিণবঙ্গের পাশাপাশি উত্তরবঙ্গেও বৃষ্টি হবে। সবমিলিয়ে পরের সপ্তাহের মধ্যে বাংলার দিকে বর্ষা কতটা এগোয় সেদিকেই তাকিয়ে আবহবিদরা।