সৌদিআরব মিশরের উপর চাপ সৃষ্টি করছে ইরানের সঙ্গে সংঘাতে জড়াতে

0
Saudi Arabia is putting pressure on Egypt to put an end to the conflict with Iran

নিউজডেস্ক,টাইমস্ বাংলাঃ সৌদীআরব মার্কিন বন্ধুত্বের খাতিরে বহুপূর্ব থেকে মধ্যপ্রাচ্যে ইরাণ ভীতি ছড়িয়ে ইরাণ বিরোধী একটা শক্তিবলয় গড়ার প্রচেষ্টা চালিয়ে আসছে।এবার সেই লক্ষ্যে ইরাণের বিরুদ্ধে সরাসরি সংঘাতে নামতে মিশরের উপর চাপ সৃষ্টি করল সৌদী আরব।যেহেতু এখন ইরাণের সঙ্গে মার্কিনযুক্তরাষ্ট্রের সম্পর্ক অতি নাজুক তার উপর সৌদিআরবের এই প্রয়াস সৌদীদের কিছু উপকারে না এলেও মার্কিনযুক্তরাষ্ট্রের ফায়দা তো হবেই।

মিশরের প্রেসিডেন্ট দফতরের সঙ্গে ঘনিষ্ঠ কয়েকটি সূত্রের বরাত দিয়ে লন্ডন ভিত্তিক সংবাদ মাধ্যম আল- আরাবি আল-জাদিদ আজ (শনিবার) জানিয়েছে যে, সংযুক্ত আরব আমিরাতের ফুজায়রা বন্দরের কাছে তেলবাহী জাহাজ ‘নাশকতামূলক’ হামলার শিকার হওয়ার পর মিশরের ওপর এ চাপ আরো বৃদ্ধি পেয়েছে।

সংবাদ মাধ্যমটি জানিয়েছে, ইরানের বিরুদ্ধে আরো আগ্রাসী অবস্থান নিতে রিয়াদ এবং আবু ধাবি সরকার মিশরের ওপর চাপ সৃষ্টি করছে। তবে কায়রো সেই পথে যেতে অস্বীকৃতি জানিয়েছে। একটি কূটনীতিক সূত্র জানিয়েছে, ন্যূনতম পর্যায়ে হলেও ইরানের সঙ্গে কূটনৈতিক সম্পর্ক বজায় রাখাকে কায়রো গুরুত্ব দেয়। কিন্তু পারস্য উপসাগরীয় দেশগুলো তেহরানের সঙ্গে সরাসরি সংঘাতে যেতে কায়রোকে নানাভাবে প্রলুব্ধ করার চেষ্টা করছে।

মিশরের একটি কূটনৈতিক সূত্র জানিয়েছে, মধ্যপ্রাচ্যে সেনা পাঠানোর বিষয়ে মিশরকে রাজি করতে দেশটিকে আর্থিক এবং তেল সুবিধা দেয়ার পাশাপাশি সেখানে সরাসরি বিনিয়োগের প্রস্তাব দিয়েছে সৌদি আরব এবং আরব আমিরাত।  

সংবাদ মাধ্যমটি আরো জানিয়েছে, সৌদি আরবের তেল কোম্পানি ‘আরামকো’ মিশরকে প্রতিমাসে ৭,৫০০ কোটি ডলার মূল্যের তেল ফ্রি দেয়ার সময়সীমা বাড়ানোর পাশাপাশি মিশরের কেন্দ্রীয় ব্যাংকে বিপুল পরিমান ডলার জমা রাখার প্রস্তাব দিয়েছে রিয়াদ।এছাড়া, আরব আমিরাতও মিশরের মোট রিজার্ভ বাড়াতে ১৫ বিলিয়ন ডলার জমা রাখার প্রস্তাব দিয়েছে।