বুলবুলের ত্রাণ নিয়ে ঘৃণ্য রাজনীতি ও দুর্নীতি করছে রাজ্য সরকার,অভিযোগ দিলীপের

0
The government is trying to control the governor's activities, fearing that many unpleasant truths will be revealed: Dilip

টাইমস বাংলা নিউজডেস্ক : ঘূর্ণিঝড় বুলবুলে ক্ষতিগ্রস্তদের বিলি নিয়ে রাজ্যের শাসক দল রাজনীতি করছে বলে বিজেপি অভিযোগ করেছে। দলের রাজ্য দপ্তরে শনিবার সাংবাদিক বৈঠকে রাজ্য বিজেপি সভাপতি দিলীপ ঘোষ বলেন, রাজ্য সরকার ক্ষতিগ্রস্তদের বাড়িতে চাল ও ৫ লিটার কেরোসিন তেল দেওয়া হবে বলে ঘোষণা করলেও বিজেপি কর্মীদের ওই তালিকা থেকে বাদ দেওয়া হয়েছে। দিলীপ বাবু জানান, ত্রাণ নিয়ে রাজনীতি করা হবে না বলে মুখ্যমন্ত্রী প্রতিশ্রুতি দিলেও ত্রাণ বন্টনে অত্যন্ত ঘৃণ্য রাজনীতি করা হচ্ছে। পাশাপাশি তিনি ক্ষতিগ্রস্ত এলাকা পরিদর্শনে আসা দুই কেন্দ্রীয় মন্ত্রীকে হেনস্থা করার ঘটনারও কঠোর সমালোচনা করেন। ত্রাণ সামগ্রী চুরি করার উদ্দেশ্যেই কেন্দ্রীয় মন্ত্রী ও অন্যান্য রাজনৈতিক দলের প্রতিনিধিদের ঝড়ে বিধ্বস্ত এলাকায় যেতে দেওয়া হচ্ছে না বলে তার অভিযোগ।
এদিকে ঘূর্ণিঝড়ে ক্ষয়ক্ষতির যে হিসাব মুখ্যমন্ত্রী দিয়েছেন দিলীপবাবু তা নিয়েও প্রশ্ন তোলেন। তিনি বলেন, বুলবুলে ৫ লক্ষ ঘরবাড়ি নষ্ট হয়েছে বলে মুখ্যমন্ত্রী জানিয়েছেন। তবে এরপর দিল্লিতে এবিষয়ে এক বৈঠকে রাজ্য সরকারের সংশ্লিষ্ট আধিকারিকরা ঘূর্ণিঝড়ে ১ লক্ষ বাড়ি ঘর নষ্ট হয়েছে বলে জানিয়েছেন। দিলীপবাবু বলেন, প্রকৃত সত্যকে আড়াল করতেই এই ধরনের ভুল তথ্য দেওয়া হচ্ছে। তিনি জানান, এর আগেও ঘূর্ণিঝড় আয়লায় ক্ষতিগ্রস্তদের জন্য তৎকালীন কেন্দ্রীয় সরকার প্রায় ৮০০ কোটি টাকা অর্থ সাহায্য দিলেও তা সঠিকভাবে বন্টন করা হয়নি। সুন্দরবন এলাকায় এখনো বহু মানুষ সেই ক্ষতিপূরণ পাননি বলে শ্রী ঘোষ জানিয়েছেন। তিনি আরো বলেন, শাসকদল মানুষের দুর্দশা দূর করার পরিবর্তে রাজনীতি করছে ও আগামী ২০২১ সালের জন্য নির্বাচনী অর্থ সংগ্রহ করছে। দিলীপ বাবু এই ঘটনায় প্রকৃত সত্য প্রকাশ্যে আনতে সরকারিভাবে সমীক্ষা করা ও ঝড়ে ক্ষতিগ্রস্তদের নামের তালিকা প্রকাশের দাবি জানান। তা না হলে ক্ষতিগ্রস্ত মানুষেরা বঞ্চিত হবেন বলে শ্রী ঘোষ জানিয়েছেন।