চলচ্চিত্র নির্মাতা হওয়ার অদম্য ইচ্ছা সুমন্ত দে কে করে তুলল বাংলার কনিষ্ঠতম সফল উদ্যোগপতি

0
Sumanta Dey has the indomitable desire to become a filmmaker

টাইমস বাংলা বিশেষ প্রতিবেদন : নেশা ছিল ছবি বানাবেন। পথ চলা শুরুও করেছিলেন সেই উদ্দেশ্যে। কিন্তু ছবি বানানোর জন্য বিপুল অর্থের প্রয়োজন এই উপলব্ধি করেই শুরু করলেন ব্যবসা। যোগ দিলেন একটি বহুজাতিক সংস্থায়। এর পর এক পা এক পা করে তার এগিয়ে চলা। পাশাপাশি তার নতুনত্য গ্রাফিক্স ডিজাইন ও এডিটিং এর জন্য টলিপাড়ায় যেমন খ্যাতি অর্জন করলেন, তেমনই নিজের টাকায় ছবি নির্মাণের লক্ষ্যেই বাংলার সর্বকনিষ্ঠ উদ্যোগপতি হয়ে উঠলেন। তিনি আর কেউ নন কোলকাতার অন্যতম বৃহৎ অনলাইন ফুড মার্কেট আহার বাজারের মুখ্য কার্যনির্বাহী আধিকারিক সুমন্ত দে। তার উত্থানের কাহিনী যেমন বিস্ময়কর, তেমনই অনুপ্রাণিত করে আমাদের।।

কাটিয়াহাট বি.কে.এ.পি ইনষ্টিটিউশন থেকেই পড়াশোনার পাশাপাশি ২০১২ সালে মাত্র ১৩ বছর বয়সেই স্বাধীন চলচ্চিত্র নির্মাতা হিসেবে সুমন্ত দে তার সফর শুরু করেন। কিন্তু ছবি বানাতে গিয়ে তিনি বুঝতে পারলেন অর্থের সংস্থান ছাড়া এই পেশায় টিকে থাকা এককথায় অসম্ভব। সেই উদ্দেশ্যে ২০১৪ সালে সুমন্ত দে যোগ দিলেন এক বহুজাতিক বাণিজ্যিক সংস্থায়। ২০১৫ সালে অর্জিত অর্থ দিয়ে তৈরি করলেন নিজের প্রোডাকশন সংস্থা এস ডি ফিল্মস। ঐ বছরেই নিজের বন্ধুদের নিয়ে ‘প্রতিবিম্ব’ নামে একটি শর্ট ফিল্ম বানান । ২০১৬ সালে তিনি একটি মশলার ডিসট্রিবিউশনের সংস্থা খোলেন, কিন্তু দুর্ভাগ্যবশত তিন মাসের মধ্যে এই সংস্থা বন্ধ হয়ে যায়। ২০১৭ সালে বসিরহাটের স্বর্ণেন্দু রায়ের জীবনকাহিনী থেকে অনুপ্রাণিত হয়ে তিনি বানালেন তথ্য -কাহিনী চিত্র ‘ তুমি অপরাজিত’, এই ছবিটিও চলচ্চিত্র মহলে প্রশংসিত হয়। ২০১৮ সালে তিনি প্রতিষ্ঠা করলেন তার প্রথম কোম্পানী “রিঅট রিটেল প্রাইভেট লিমিটেড” ও তার ব্র্যান্ড আহারবাজার ডট কম নামে অনলাইনে খাবার কেনার প্ল্যাটফর্ম। তিনি বর্তমানে এই রাজ্যের একজন সফল উদ্যোগপতি। টাইমস বাংলা পরিবার সুমন্ত দে – র চলচ্চিত্র নির্মাণের কেরিয়ার ও আহার বাজারের জন্য সাফল্যের কামনা করে।