শিক্ষার মাধ্যমে সমাজে নতুন ভোরের আলো ফোটাতে আত্মপ্রকাশ করলো প্রভাতের আলো পীরগঞ্জ

0
The dawn light pirganj began to shed new light in the society through education

টাইমস বাংলা বিশেষ প্রতিবেদন : শিক্ষার মাধ্যমে সমাজে নতুন ভোরের আলো ফোটাতে আত্মপ্রকাশ করলো প্রভাতের আলো পীরগঞ্জ প্রাইমারি স্কুল। মালদা জেলার পীরগঞ্জে সমাজের সকল স্তরের শিশুদের যুগোপযোগী ও নৈতিক শিক্ষার মাধ্যমে আগামী দিনের সমাজের কান্ডারি রূপে গড়ে তুলতে শিক্ষাপ্রেমী সবিউল ইসলাম,স্থানীয় কিছু শিক্ষক, শিক্ষাবিদ ও কলেজ পড়ুয়াদের সহায়তায় চালু করেছেন এই স্কুল। প্রি প্রাইমারি থেকে দ্বিতীয় শ্রেণী পর্যন্ত মোট ১২০ জন শিশু তাদের শিক্ষাজীবনের প্রাথমিক পাঠ নিতে পারবে এই স্কুল থেকে। আগামী সোমবার থেকে স্কুলে ক্লাস শুরু হবে। এর আগে বৃহস্পতিবার স্কুলের উদ্বোধন করেন আল আমীন মিশনের সাধারণ সম্পাদক বিশিষ্ট শিক্ষাবিদ নুরুল ইসলাম। উপস্থিত ছিলেন আন্তর্জাতিক খ্যাতিসম্পন্ন বৈজ্ঞানিক ডক্টর মুনকির হোসেন, আলিয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের রসায়ন বিভাগের অধ্যাপক ডক্টর নাসিম কামেলি, স্কুলের চেয়ারম্যান সবিউল ইসলাম, সম্পাদক মঞ্জুর আলম প্রমুখ।

স্কুলের চেয়ারম্যান সবিউল ইসলাম বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় টাইমস বাংলাকে জানালেন, ” চিরাচরিত শিক্ষাব্যবস্থা থেকে একটু আলাদা করে ভেবেছি আমরা। এই স্কুলে হতদরিদ্র ঘরের শিশুরাও যেমন পড়বে তেমনই পড়বে অবস্থাপন্ন ঘরের শিশুরাও। অভিভাবকের আর্থিক অবস্থার উপর ভিত্তি করে উচ্চবিত্ত পরিবারের সন্তানদের জন্য মাসে ৩৫০ টাকা , মধ্যবিত্ত পরিবারের জন্য ২৫০ টাকা করে টিউশন ফি ধার্য করা হয়েছে। নিম্নবিত্ত বা হতদরিদ্রদের পরিবারের ছেলেমেয়েদের সম্পূর্ণ নি:খরচায় পড়ানো হবে। কোন পড়ুয়া কোন ক্যাটাগরিতে পড়বেন তা আমরা অভিভাবকদের ইন্টারভিউ নিয়ে স্থির করবো।” সবিউল বলেন, গরীব ঘরের পড়ুয়াদের স্কুল কতৃপক্ষই বই, খাতা, বিদ্যালয়ের পোশাক কিনে দেবে। স্কুলের তরফ থেকে পড়ুয়াদের নিয়ে আসা, বাড়ি দিয়ে আসার জন্য গাড়ির ব্যবস্থা করা হয়েছে। গরীব ঘরের পড়ুয়ারা নি:খরচাতেই এই সুযোগ পাবেন। চলতি শিক্ষাবর্ষে ১১৪ জন পড়ুয়া ভর্তি হয়েছে, যার মধ্যে ১০ জন সম্পূর্ণ নি খরচায় পঠন পাঠন করতে পারবে বলে সবিউল জানান। শিক্ষকের সংখ্যা বর্তমানে ৬।

সবিউল ইসলাম বলেন, ” পুঁথিগত শিক্ষার পাশাপাশি পড়ুয়াদের মধ্যে সাংস্কৃতিক চেতনা, সাম্যের ভাবনা গড়ে তোলা হবে। জীবনে প্রতিকূলতাকে কাটিয়ে যাতে তারা নিৰ্ভয়ে নিজেদের লক্ষ্যের দিকে এগিয়ে যেতে পারে সেই সাহসও এই বয়স থেকেই এদের মধ্যে সঞ্চার করা হবে। এই শিশুরাই যাতে বড় হয়ে সমাজের বুকে শান্তি প্রতিষ্ঠা করতে পারে, সমাজকে নতুন দিশা দেখাতে পারে সেইভাবেই এদের গড়ে তোলা হবে।” যুগোপযোগী শিক্ষার অঙ্গ হিসেবে প্রি প্রাইমারি শ্রেণী থেকেই পড়ানো হবে কম্পিউটার। তিনি বলেন, শিশুদের নৈতিক শিক্ষা দেওয়া ও কাউন্সেলিং এর উদ্দ্যেশ্যে মনস্তত্ববিদদের নিয়ে আসা হবে। তবে শুধু ছাত্রছাত্রীদের জন্য নয় স্কুলের শিক্ষক এমনকি নিজের সন্তানদের মধ্যে প্রথম থেকেই ইঁদুর দৌড়ের ধারণা যাতে অভিভাবকরা না গাঁথতে পারেন, সেই উদ্দেশ্যে অভিভাবকদেরও কাউন্সেলিং করা হবে। পড়ুয়াদের সম্পূর্ণ আনন্দের পরিবেশে প্রাথমিক শিক্ষা অর্জনের সুযোগ দিতে ভবিষ্যতে অত্যাধুনিক প্লে স্কুলের পরিকাঠামোও স্কুলে গড়ে তোলা হবে বলে সবিউল ইসলাম জানান।

টাইমস বাংলা সবিউল ইসলাম সহ প্রভাতের আলো পীরগঞ্জ স্কুলের সঙ্গে জড়িত সকলকে শুভকামনা ও শুভেচ্ছা জানায়। তারা যাতে তাদের লক্ষ্য সম্পূর্ণরূপে পুরন করতে পারেন, সেই কামনা টাইমস বাংলা করছে।