কমিশনের কড়া পদক্ষেপ,একদিন অাগেই বন্ধ ভোট প্রচার,সরিয়ে দেওয়া হল স্বরাষ্ট্র সচিবকে

0
The strict action of the commission, one day after the closed voting campaign was removed, the Home Secretary was removed

নিউজডেস্ক,টাইমস্ বাংলাঃ সপ্তম তথা শেষ দফার নির্বাচনী প্রচার শেষ হওয়ার কথা শনিরার কিন্তু নির্বাচন কমিশন নজিরহীন ভাবে ঘোষনা দিল তা বন্ধ হবে শুক্রবার থেকেই।এই সঙ্গে রাজ্যের স্বরাষ্ট্র সচিব অত্রি ভট্টাচার্য়কে এবং এসডিজি সিআইডি পদে থাকা রাজীব কুমারকেও পদ থেকে সরিয়ে দিল নির্বাচন কমিশন।

দিল্লীতে মুখ্য উপ নির্বাচন কমিশন এক সাংবাদিক সম্মলনে জানিয়েছেন, পশ্চিমবঙ্গ থেকে বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের অভিযোগ এবং গত ২৪ ঘন্টায় পশ্চিমবঙ্গে ঘটে যাওয়া কর্মকাণ্ড পর্যালোচনার পর কমিশন এই সিদ্ধান্ত নিয়েছে।রাজনৈতিক দলগুলোর প্রচার ও পদযাত্রাকে কেন্দ্র করে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে,ভোট চলাকালীন আইন শৃঙ্খলার অবনতি রুখতেই এই সিদ্ধান্ত বলে কমিশন জানিয়েছে।

অপসারিত রাজ্যের স্বরাষ্ট্রসচিবের স্থলে এখন দায়ীত্ব পালন করবেন রাজ্যের মুখ্যসচিব মলয় দে।

রাজনৈতিক বিশ্লেষক মনে করছেন,বিদ্যাসাগরের মূর্তি ভাঙার পর সারা বাংলা এখন ক্ষোভে ফুঁসছে।সেই মুহুর্তে রাজ্যে ৩২৪ ধারা প্রয়োগ করল নির্বাচন কমিশন।এতে রাজনৈতিক স্তরে উত্তেজনা কমলেও কমতে পারে কিন্তু বাংলার জনমানসের ক্ষোভ প্রশমিত হওয়ার এটা কোন গ্রাহ্য উপায় নয়।বাংলার মানুষের দাবী মূর্তি ভাঙ্গার অপরাধীদের শাস্তি।

 

[আরও খবর পড়ুন:   নির্বাচন কমিশনের সিদ্ধান্তের পর জরুরি সাংবাদিক সম্মেলন মমতার, দেখুন সরাসরি ]

 

প্রসঙ্গত উল্লেখ্য যে সপ্তম দফায় এরাজ্যে বসিরহাট,দমদম,রারাসত, মথুরাপুর,জয়নগর,যাদবপুর,ডায়মন্ডহারবার এবং উত্তর ও দক্ষিন লোকসভা কেন্দ্র নির্বাচন হবে।কমিশনের এই সিদ্ধান্তের উপর রাজনৈতিকদল গুলোর প্রতিক্রিয়া এখনো জানা য়ায়নি।