দুরপাল্লা ট্রেন গুলিতে ফাঁস হল নকল জল বিক্রির চক্র, গ্রেফতার ৮০০ জন

0
The tracks of fake water sale were leaked in Durpura trains, 800 arrested

টাইমস বাংলা নিউজডেস্ক : কয়েক দিন আগে একটি ভিডিও সোশ্যাল মিডিয়ায় প্রকাশ্যে আসে যাতে দেখা যায় একটি কিশোর বয়সী ছেলে একটি স্টেশনে ট্যাপ কলের জল বোতল বোতল ভর্তি করে বোতলের মুখ সিল করার জন্য কিছু একটা আটকে সেই বোতল গুলিকে নিয়ে একটি বস্তায় ভরে একটি যাত্রীবাহী ট্রেনে উঠতে। স্পষ্টতই বলার অপেক্ষা রাখে না যে সেই বোতল গুলি সে এবার জলের সাধারণ দরে বিক্রি করবে যাত্রীদের। খুব ভাইরাল হয় ভিডিও টি, পরে জানা যায় ভিডিও টি আর কোথাও নয়, এরাজ্যে মালদা স্টেশনের। মালদহ স্টেশনের ভিডিও টি প্রকাশ্যে আসতেই সেই বিষয়টি স্পষ্ট হয়। বেআইনি জল বিক্রি চক্রের পর্দাফাঁস হয়। ভিডিওটির ভিত্তিতেই দেশজুড়ে নকল জলের বিরুদ্ধে অভিযান চালায় রেল।এবং এর পরেই ট্রেন ও স্টেশনে মিনারেল ওয়াটারের বোতলে সাধারণ জল ভরে বিক্রি করার অপরাধে ৪ প্যান্ট্রি কার ম্যানেজার-সহ দেশের নানা প্রান্ত থেকে গ্রেপ্তার করা হল ৮০০জনকে। এদের বিরুদ্ধে ভারতীয় দণ্ডবিধির ১৪৪ ধারায় মামলা রুজু করা হয়েছে।
বুধবার রেলমন্ত্রী পীযূষ গোয়েল জানিয়েছেন, যাত্রীদের অভিযোগের ভিত্তিতেই ভারতীয় রেলের তরফে দু’দিন ধরে প্রায় ৩০০ জায়গায় তল্লাশি চালানো হয়। বাজেয়াপ্ত করা হয়েছে ৫০ হাজার এরকম নকল জলের বোতল। মালদহ স্টেশনে প্রকাশ্যে এই কাজ চালানোর পিছনে কাদের মদত রয়েছে,তা খতিয়ে দেখতে নির্দেশ দেন কর্তারা। বিভিন্ন মহল থেকে প্রশ্ন ওঠে আরপিএফ কর্তাদের উদাসীনতা নিয়েও। বিষয়টি প্রকাশ্যে আসতেই রেল বোর্ড কর্তাদের একাংশ বলেন, স্টেশন ও ট্রেনে এই অনুমোদনহীন জল বিক্রিতে যুক্ত এক শ্রেণির রেলকর্মীরাই। তাঁদের প্রকাশ্য মদতে হকাররা ট্রেন ও প্ল্যাটফর্মে এই জল বিক্রি করে। যাত্রীরা এনিয়ে বারবার অভিযোগ করেছেন রেল কর্তৃপক্ষের কাছে। সাময়িক ব্যবস্থাও নেওয়া হয় কিন্তু স্থায়ীভাবে তা কার্যকর হয় না। ফলে নিম্নমানের পানীয় জলই বোতলবন্দি করে দেদার বিক্রি করা হয় বিভিন্ন ট্রেনে। আইআরসিটিসির নিজস্ব পানীয় জল প্রকল্প থেকে ‘রেল নীর’ এর জোগান কমে যাওয়ার ফলেই বিভিন্ন অননুমোদিত সংস্থা তাদের জলের বোতল স্টেশনে বিক্রি করতে শুরু করে। অভিযোগ, সেই সুযোগে এক শ্রেণির অসাধু ব্যবসায়ী নির্ধারিত দামের চেয়ে বেশি দামে জল বিক্রি করে যাত্রীদের কাছে।