মহিয়সী নারী, ক্যান্সার রোগীদের সাহায্যের জন্য ন্যাড়া হলেন এই মহিলা পুলিশ অফিসার

0

টাইমস বাংলা, নিউজ ডেস্ক: ক্যান্সার ! এমন একটা রোগ যা শুনলেই মানুষের মনে আতঙ্ক তৈরি হয়। এই মারন রোগের আজকাল অনেক রকম চিকিৎসা রয়েছে। অনেকে ঠিক চিকিৎসায় পুরোপুরি সেরেও যান। কিন্তু এখনও ক্যান্সারের ক্ষেত্রে ৯০ শতাংশ মানুষ রোগ থেকে মুক্তি পান না। আর এই রোগের একটাই পরিনতি, মৃত্যু। ক্যান্সার আক্রান্তদের পাশে থাকতে এগিয়ে এলেন কেরলের ত্রিসুর জেলার পুলিশ অফিসার অপর্ণা লবকুমার। তাঁর মাথায় কোমর পর্যন্ত চুল ছিল। সেই চুল কেটে ন্যাড়া হলেন তিনি। এবং তাঁর চুল দান করে দিলেন ক্যান্সার আক্রান্ত রুগিদের উইগ বানানোর জন্য। কেমো থেরাপি চলার সময় এই রোগে আক্রান্তদের চুল সব উঠে যায়। তখন অনেকেই উইগ ব্যবহার করেন। মানুষের চুল ছাড়া ভাল উইগ বানানো সম্ভব হয় না। আর মানুষের চুল দিয়ে বানানো উইগের দাম অনেক হয়। তা সকলের কেনার ক্ষমতা থাকে না। কিন্তু চুল দান করলে কেউ তা দিয়ে অনায়াসে উইগ বানানো যায়। আজকাল অনেকেই নিজেদের চুল এই ভাল কাজের জন্য দান করছেন। এই পুলিশ অফিসারও সেই মহৎ কাজে নিজের নাম লেখালেন। অপর্ণা জানিয়েছেন, ক্লাস ফাইভে পড়া এক ছোট মেয়ে ক্যান্সারে আক্রান্ত। তাঁর মাথার সব চুল উঠে গিয়েছে। এবং এর জন্য বাচ্চাটি খুব কষ্ট পাচ্ছে। সেটা দেখে তাঁর খুব কষ্ট হয়। তিনি সোজা পার্লারে গিয়ে নিজের চুল ন্যাড়া করে ওই বাচ্চার জন্য উইগ বানান। এই ঘটনা সামনে আসতেই সকলে ওই পুলিশ অফিসারের প্রশংসায় ভরিয়ে দেন। অপর্ণা এর আগেও নিজের সোনার চুড়ি বিক্রি করে এক অসহায় পরিবারকে সাহায্য করেছেন।