মধ্যপ্রাচ্যের অস্থিরতার মুহুর্তে ইরাণ-সৌদী বৈঠক শান্তি আনতে পারবে কি?

0
Will the Iran-Saudi meeting bring peace at the moment of unrest in the Middle East?

নিউজডেস্ক, টাইমস্ বাংলাঃ মধ্যপ্রাচ্যে যাবতীয় রাজনৈতিক উত্থানপতন গোষ্ঠীবাদকে কেন্দ্র করেই।এক গোষ্ঠী অপর গোষ্ঠীর উপর প্রভুত্ব স্থাপন করার প্রয়াসেই সেখানে ইতিহাসকে প্রভাবিত করে আসছে দীর্ঘ দিন ধরেই।আর এই কারণেই বিদেশী শক্তিগুলোর উপস্থিতি মধ্যপ্রাচ্যকে আরো বিবাদমান করে তুলেছে।ইরাক,ইয়েমেন,শিরিয়া ও ফিলিস্তিনের সমস্যাগুলো গোষ্ঠীবাদ ও বৈদেশিক মদতের কারণে দীর্ঘস্থায়ী হয়ে পড়ছে। মার্কিণযুক্তরাষ্টি দ্বারা সোলাইমানির হত্যার পর মধ্যপ্রাচ্যের পরিস্থিতি আরো নাজুক হয়ে পড়ে।এইমতোবস্থা ইরাণ-সৌদী আলোচনা মধ্যপ্রাচ্যতে একটা আশার সঞ্চার করবে।

সৌদি আরবের পররাষ্ট্রমন্ত্রী ফয়সাল বিন ফারহান আজ (বুধবার) বলেছেন, তার দেশ ইরানের সঙ্গে আলোচনা করতে প্রস্তুত।তিনি বলেন, আমরা ইরানের সঙ্গে আলোচনাকে স্বাগত জানাই, তবে শর্ত হলো বিভিন্ন গোষ্ঠীর প্রতি সহিংসতামূলক সহযোগিতা বন্ধ করতে হবে। তিনি এমন সময় এই অভিযোগ করলেন যখন সৌদি আরব প্রতিবেশী দেশ ইয়েমেনে আগ্রাসন চালাচ্ছে এবং আইএসসহ বিভিন্ন গোষ্ঠীকে সমর্থন দিয়ে যাচ্ছে।

সৌদি পররাষ্ট্রমন্ত্রী আরও বলেন, বিশ্বের অনেক দেশ ইরানের সঙ্গে আমাদের আলোচনায় মধ্যস্থতাকারীর ভূমিকা পালনের জন্য প্রস্তাব দিচ্ছে। আমরা এজন্য খুশি যে, ইরানের সঙ্গে সহিংসতা ও উত্তেজনা থেকে গোটা অঞ্চল বিরত থেকেছে।

এর আগে ইরানের পররাষ্ট্রমন্ত্রী মোহাম্মাদ জাওয়াদ জারিফ বলেছেন, তারা সৌদি আরবসহ পারস্য উপসাগরীয় দেশগুলোর সঙ্গে আলোচনা করতে প্রস্তুত আছে।

তবে ইরাণ চায়বে মধ্যপ্রাচ্য থেকে মার্কিণ সামরিক বাহিনী চলে যাক।কিন্তু এতে সৌদী আরব কতটা সম্মত আছে তা দেখার বিষয়।