ঋষিককে হেনস্থার অভিযোগ মানতে নারাজ জেভিয়ার্স কর্তৃপক্ষ

0
Xavier's authorities refuse to accuse Rishi of indecency

টাইমস বাংলা নিউজডেস্ক – সেন্ট জেভিয়ার্সের ছাত্র ঋষিক কোলের মৃত্যুর পিছনে  কলেজ বা হস্টেলে কোনও হেনস্থার ঘটনা নেই বলে স্পষ্ট জানিয়ে দিল কলেজ কর্তৃপক্ষ । গত বৃস্পতিবার সকালে সিঙ্গুরের বাসিন্দা ঋষিক কোলের শেষবারের মত মোবাইল টাওয়ারের লোকেশন পাওয়া যায় কলকাতার বেকবাগানের কাছে। তারপর থেকে তাঁর আর কোনও খোঁজ পাওয়া যাচ্ছিল না। এরপর ঐদিনই বিকেলে ঋষিক কোলের (১৮) মৃতদেহ পাওয়া যায় বেলুড়ে রেললাইনের পাশে। তার গলা কাটা ছিল। এরপরেই স্বাভাবিক ভাবে প্রশ্ন ওঠে কলেজে ভর্তি হওয়ার পর তাঁর উদ্দেশ্যে কি কেউ কোন অপমানজনক মন্তব্য করেছিলেন, যা মেনে নিতে পারেননি সে ?

এই প্রসঙ্গ উড়িয়ে দিয়ে কলেজের অধ্যাপক ডক্টর সিলভারের স্পষ্ট বক্তব্য , “সবে ক্লাস শুরু হয়েছে| এরমধ্যে মাত্র দু’দিন ক্লাস করেছে সে। কোনও সমস্যা আছে কিনা বোঝার জন্যও  কিছুটা সময় দরকার হয়| সেই সময়ই তো পাওয়া যায়নি। কাউন্সেলিং করারও সময় পাওয়া যায়নি। বাংলা মিডিয়াম থেকে অনেক ছাত্র ছাত্রী এখানে ভর্তি হয়। সেটা কোনও সমস্যা নয়। আর পরিবারকে যে জানাব সে ক্লাস করছে না, তার জন্যও নির্দিষ্ট সময় লাগে”।  ঋষিকের মৃত্যু অপ্রত্যাশিত ও দুর্ভাগ্যজনক বলেই তার মন্তব্য।

কিন্তু শুধু ইংরেজি বুঝতে বা বলতে অসুবিধার জন্য হীনমন্যতায় ভুগে সে মৃত্যু বরণ করল নাকি এর পেছনে আরও অন্য কারণ আছে তা খতিয়ে দেখছে পুলিশ| তবে ঋষিকের পরিবার সহ বাড়ির লোকজনের বক্তব্য কলেজের কারোর তির্যক মন্তব্য বা হেনস্থার কারণ এর পেছনে কাজ করে থাকতে পারে | যদিও এই সব সম্ভাবনাই কার্যত উড়িয়ে দিচ্ছে কলেজ কর্তৃপক্ষ| ময়না তদন্তের রিপোর্ট এলেই বাকিটা স্পষ্ট হবে বলে অনুমান পুলিশের| এর পাশাপাশি কলেজ সহ মৃতদেহ উদ্ধারের ঘটনাস্থলের সিসিটিভি ফুটেজ খতিয়ে দেখছে পুলিশ।